অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এখন হুমকির মুখে

মোবাইল এবং ট্যাবলেট পিসির অপারেটিং সিস্টেম হিসেব অ্যান্ড্রয়েড সবচেয়ে জনপ্রিয়। কিন্তু এই অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা এখন হুমকির মুখে, কারণ একটাই – সাইবার আক্রমণের সম্মুক্ষীণ হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা।

বর্তমানে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে আর তার অধিকাংশ শিকার হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা, প্রায় ৯৫ শতাংশ। আমেরিকা এবং চীনের মোবাইল সিকিউরিটি হেডকোয়ার্টস থেকে বলা হয়েছে যে, ২০১২ সালে প্রায় ৩৩ মিলিয়ন অ্যান্ড্রয়েড যন্ত্রাংশ ম্যালওয়্যার আক্রমণের লক্ষ্যে পরিণত হয়েছে, যা আগের বছরের তুলনায় ২০০ শতাংশ বেশী।

এনকিউ মোবাইলের সহ-প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন যে, “অ্যান্ড্রয়েড হচ্ছে বর্তমান বিশ্বে সবচেয়ে জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম। আর অ্যান্ড্রয়েড ওপেন সোর্স বলে ডেভেলপাররা নতুন নতুন অ্যাপ্লিকেশন বের করার সুযোগ পায়।”

আর ওপেন সোর্স হওয়াতে, অ্যান্ড্রয়েড ম্যালওয়ারের মূল লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে। কিছু কিছু অ্যাপ্লিকেশনে আক্রমণকারীরা ম্যালওয়্যার প্রোগ্রাম করে দিচ্ছে, যার ফলে ব্যবহারকারীরা এইসব অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে ইনস্টল দেওয়ার পর, তার সেই যন্ত্রে ম্যালওয়্যার আক্রমণের শিকার হচ্ছে।

অনেকসময় কিছু ভুয়া লিঙ্ক থেকেও ম্যালওয়্যারের আক্রমণ হতে পারে। সেই জন্য কখনো কোন লিঙ্কে ক্লিক করার আগে সাবধান থাকা উচিত, যে লিঙ্কটা কি আসল না ভুয়া।

মাঝে মধ্যে, মোবাইল ব্যবহারকারীরা ভুয়া এসএমএস-এর মাধ্যমে ফিশিং এর শিকার হচ্ছে, যার ফলে তার ব্যাক্তিগত মেইল আইডি, ক্রেডিট কার্ডের গোপন নম্বর সব চুরি হয়ে যাচ্ছে।

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের সবসময় সতর্ক থাকা উচিত অ্যাপ্লিকেশন নির্বাচনের দিক থেকে,এমনকি কোন লিঙ্কে ক্লিক করা থেকে। কারন নিজের নিরাপত্তার দিকে নিজেরই খেয়াল রাখা উচিত।

ব্লু কোট নামক একটি ওয়েব সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠানের সমীক্ষা মতে, মোবাইল ফোনের প্রায় ২৫ শতাংশ ম্যালওয়্যার প্রবেশ করে পর্ন সাইটে প্রবেশের মাধ্যমে।

ম্যাকেফি(McAfee) নামক এক ওয়েব নিরাপত্তা বিষয়ক প্রতিষ্ঠানের সমীক্ষা মতে, প্রতি ১০ জন মোবাইল ব্যবহারকারীর মধ্যে ৩ জন তাদের মোবাইলে কোন পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে না, যার ফলে অনেকে অনুপ্রবেশ করে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ ঘটাতে পারে।

এনকিউ এর সমীক্ষা মতে, বিশ্বের মধ্যে ভারত, চীন এবং রাশিয়া হচ্ছে ম্যালওয়্যার (মোবাইলে) শিকারের মধ্যে শীর্ষে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *