এক নজর দেখুন ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি

এক নজর দেখুন ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি

খুব কাছে থেকে উঠানো ছোট ফুল কিংবা গুবড়েপোকার মত প্রানীর ছবি নিশ্চয়ই দেখেছেন। ইচ্ছে করলে মাইক্রোস্কোপিক ছবি বলতে পারেন। মীমাছির বিশাল মাথা বিশেষ এক জগত তুলে ধরে। ফটোগ্রাফির ভাষায় একে বলে ম্যাক্রো ফটোগ্রাফি।

সমস্যা হচ্ছে সাধারন ক্যামেরায় আপনি ইচ্ছে করলেই মৌমাছির মাথার সাথে লেন্স লাগিয়ে ছবি উঠাতে পারেন না। প্রতিটি লেন্স সবচেয়ে কম কত দুরত্বে ছবি উঠাতে পারে সেটা নির্দিষ্ট। যদি কোন লেন্সের সবচেয়ে কম দুরত্ব ১ ফুট হয় তাহলে তারচেয়ে কাছের ছবি উঠানোর চেষ্টা করলে আউট অব ফোকাস (ঝাপসা) ছবি পাবেন। আবার কিছুটা দুরে থেকে জুম করে পুরো মাথার ছবি উঠালে সেই বিশেষ ছবি পাবেন না।

এজন্য প্রয়োজন হয় ম্যাক্রো লেন্স। প্রথমে কম্প্যাক্ট ক্যামেরার কথা বিবেচনা করা যাক। বর্তমানের বহু ক্যামেরায় ম্যাক্রো মোড বলে একটি মোড থাকে। এই মোডে ১ ইঞ্চির কম দুরত্বে ছবি উঠানো যায়। অর্থাত ক্যামেরার লেন্সকে একটি ফুলের গায়ে লাগিয়ে ছবি উঠাতে পারেন। যদি আপনার ক্যামেরায় ম্যাক্রো মোড না থাকে তাহলে সেটা পারেন না।

এসএলআর ক্যামেরায় যেহেতু লেন্স পাল্টানো যায় সেহেতু আপনি পৃথকভাবে ম্যাক্রো লেন্স কিনে ব্যবহার করতে পারেন। শুধুমাত্র ম্যাক্রো ফটোগ্রাফির জন্য লেন্স কিনতে হবে এমন কথা নেই, সাধারন লেন্সের সাথেও ম্যাক্রো ফটোগ্রাফির সুবিধে যোগ করা লেন্স পাওয়া যায়। কেনার আগে লেন্সের বর্ননা দেখে নিতে পারেন।

ম্যাক্রো ফটোগ্রাফির জন্য বিশেষভাবে তৈরী আরেকটি ডিভাইস প্রচলন রয়েছে। এর নাম এক্সটেনশন টিউব। মুলত এটা একটা ফাপা টিউব না নল। লাগানো হয় ক্যামেরা এবং লেন্সের মাঝখানে। উদ্দেশ্য ক্যামেরার সেন্সর এবং লেন্সের মধ্যকার দুরত্ব বাড়ানো। এরফলে লেন্সকে বস্তুর গায়ে লাগিয়ে ছবি উঠানো যায়। এগুলি যেগেতু সরল ডিভাইস সেহেতু দাম অত্যন্ত কম।

অনেকে নিজেই এক্সটেনশন টিউব তৈরী করে ব্যবহার করেন। বিষয়টি এমন, ক্যামেরার লেন্স লাগানোর যায়গায় যে ঢাকনা থাকে এবং লেন্সের পেছনদিকে যে ঢাকনা থাকে এধরনের দুটি ঢাকনা যোগাড় করুন। মাঝখানের অংশ কেটে ফেলুন। একটি প্লাষ্টিকের পাইপের দুপাশে দুটিকে ভালভাবে লাগিয়ে দিন। এরফলে এর একদিকে ক্যামেরা আরেকদিকে লেন্স লাগানো সম্ভব হবে। এটা ব্যবহার করে একেবারে ক্ষুদ্র কিছুর ছবি পেতে পারেন।

ম্যাক্রো ফটোগ্রাফির এই পদ্ধতি থেকে মনে হতে পারে হয়ত একে জুম করার কাজে ব্যবহার করা যাবে। বস্তুত এরফলে শুধুমাত্র ফোকাসের দুরত্ব কমবেশি হয়, দুরের বিষয়কে জুম করে না।

সবকিছুর সহজ সমাধান হচ্ছে এমন লেন্স কেনা যাকে ম্যাক্রো, সাধারন এবং জুম সব কাজেই ব্যবহার করা যায়। সিগমা, ট্যামরন এসব কোম্পানী এধরনের অল-ইন-ওয়ান লেন্স তৈরী করে বিভিন্ন কোম্পানীর ক্যামেরার জন্য।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *