কম্পিউটার ইতিহাসের মানব গুলো :: George Boole

সবাইকে সালাম জানিয়ে আমার আজকের পোষ্ট শেয়ার করছি । আমরা জানি যে কম্পিউটার নিয়ে কাজ শুরু হয় 1930 দশকের প্রথম ভাগে যদিও তখনকার কম্পিউটার এখনকার মত ছিল না এবং ব্যবহারও করা হত অন্য প্রয়োজনে। কিছু মেধাবী বিজ্ঞানী ও গনিতবিদের শ্রম, চিন্তা ভাবনা, পরীক্ষার ফসল আজকের এই কম্পিউটার। কম্পিউটার ইতিহাসের পাতায় তাদের নাম সর্ণাক্ষরে লেখা আছে থাকবে।

George Boole:

George Boole কে বলা হয় আধুনিক কম্পিউটারের জনক। যদিও তার কাজ তার মৃত্যুর (1864) পর বিলুপ্ত হয়ে গেলেও তিনি যে ধারনা দিয়ে গেছেন তার সাথে বর্তমান কম্পিউটার ধারনার সাথে সাদৃশ্যময়। George Boole হচ্ছেন Boolean বীজগনিতের জনক যা Digital কম্পিউটারের মূল মন্ত্র।

Boole 1815 সালে ইংল্যান্ডে জন্মগ্রহন করেন। সে টিনএজ বয়স থেকেই শিক্ষকতা শুরু করেন এবং 20 বছর বয়সে নিজস্ব বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। 34 বছর বয়সে আয়ারল্যান্ড চলে যান এবং Queen’s কলেজে প্রথম গনিত বিষয়ের প্রফেসর নিযুক্ত হন এবং মৃত্যু পর্যন্ত সেখানেই থাকেন। সে তার বীজগনিতে দর্শন থেকে লজিককেই প্রাধান্য দেন। তার সবচেয়ে বড় অর্জন হচ্ছে সে লজিকের বিভিন্ন পর্যায়গুলোকে প্রকাশ করার জন্য বীজগনিতকে ব্যবহার করেন। উনিশ শতকের মাঝামাঝি লজিক ও গনিতের মধ্যে সর্ম্পককে বিশ্লেষন করে অনেক গুলো প্রবন্ধ রচনা করেন। পরর্বতিতে কম্পিউটার নিয়ে গবেষনায় তার পরবর্তি বিজ্ঞানীরা এই প্রবন্ধ গুলোর সাহায্য নেন। এখনও বড় বড় সার্চ ইন্জিন গুলো তার বীজগনিতের বেশ কিছু Boolean শব্দ ব্যবহার করে থাকেন।

Author: murshedkoli

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *