ক্রেটিসিয়াস যুগের শেষ প্রাণিঃডাইনোসার

আসসালামু আলাইকুম।কেমন আছেন সবাই?চলু আজকে আমরা ডাইনোসার সম্পর্কে জেনে নেই।



ডাইনোসর পৃথিবীর বাস্তুতন্ত্রের প্রাগৈতিহাসিক অধিবাসী। এই
প্রভাবশালী মেরুদণ্ডী প্রাণীটি প্রায়
১৬০ মিলিয়ন বছর ধরে পৃথিবীতে রাজত্ব
করেছে। প্রথম ডাইনোসরের সৃষ্টি হয়েছিল
আনুমানিক ২৩০ মিলিয়ন বছর পূর্বে।
Cretaceous যুগের শেষে প্রায় ৬৫ মিলিয়ন বছর
পূর্বে একটি বিধ্বংসী প্রাকৃতিক বিপর্যয়
ডাইনোসরদের
প্রভাবকে পৃথিবী থেকে সম্পূর্ণ বিলুপ্ত
করে দেয়। তাদের একটি শ্রেণীই কেবল
বর্তমান যুগ পর্যন্ত টিকে থাকতে পেরেছে বলে ধারণা করা হয়: শ্রেণীবিন্যাসবিদরা ধারণা করেন আধুনিক পাখিরা থেরোপোড ডাইনোসরদের
সরাসরি বংশধর। উনবিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে ডাইনোসরের
প্রথম জীবাশ্ম আবষ্কৃত হয়। এরপর
থেকে পর্বতগাত্র বা শিলায়
আটকা পড়ে থাকা ডাইনোসরের কঙ্কাল
পৃথিবীর বিভিন্ন জাদুঘরে আকর্ষণের
কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। ডাইনোসরের বর্তমান বিশ্ব সংস্কৃতির একটি অবিচ্ছেদ্য
অঙ্গে পরিণত হয়েছে এবং শিশু ও বয়স্ক
সবার কাছেই বিশেষ আগ্রহের
বিষয়ে পরিণত হয়েছে। সর্বাধিক বিক্রিত
বই এবং প্রচুর
কাটতি পাওয়া চলচ্চিত্রে ডাইনোসর প্রসঙ্গ এসেছে এবং এ সংক্রান্ত নতুন
যেকোন আবিষ্কার
মিডিয়াতে বিশেষভাবে সম্প্রচার
করা হচ্ছে। ডাইনোসর নামটি ইনফরমালভাবে অন্যান্য
কিছু প্রাগৈতিহাসিক
সরীসৃপকে বোঝাতে ব্যবহৃত হয়। এর
মধ্যে রয়েছে ডিমেট্রোডন নামক
পেলিকোসর, পাখাবিশিষ্ট টেরোসর, জলচর
প্লেসিওসর এবং মোসাসর। প্রকৃতপক্ষে এগুলোর কোনটিই ডাইনোসর
ছিলনা। ডাইনোসর কাকে বলে? ক্ল্যাডিস্টিক্স-এর (জীবের
শ্রেণীবিন্যাসের জন্য বিজ্ঞানীগণ কর্তৃক
ব্যবহৃত সাধারণ পদ্ধতি) দৃষ্টিকোণ
থেকে চিন্তা করলে পাখিরা এক ধরণের
ডাইনোসর। কিন্তু সাধারণের বক্তব্য
ধর্তব্যের মধ্যে আনলে ডাইনোসরের মধ্যে পাখিদেরকে বাদ দিতে হয়।
স্পষ্টতার খাতিরে এই নিবন্ধে,
“ডাইনোসর” শব্দটি বলতে “উড়তে অক্ষম
ডাইনোসর”-দের
বোঝানো হবে এবং “পাখি”
শব্দটি “উড়তে সক্ষম ডাইনোসর”-এর প্রতিশব্দ হিসেবে ব্যবহৃত হবে।
উড়তে সক্ষম ডাইনোসর বলতে আর্কিওপটেরিক্স পূর্বপুরুষ থেকে বিবর্তিত এবং আধুনিক পাখিদের সবাইকেই
বোঝানো হবে। গুরুত্ব দিয়ে কোন বিষয়
উল্লেখ করতে হলে “উড়তে অক্ষম ডাইনোসর”
শব্দটিই ব্যবহৃত হবে।


সবাই ভাল থাকবেন।আল্লাহ হাফেজ।
সূত্রঃRIYADHHOSSEN.blogspot.com

Author: বাপি কিশোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *