Google adsense থেকে কিভাবে আয় করবেন ? | গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করুন

গুগল এডসেন্স (Google adsense) থেকে আজ বহু ব্লগার , কন্টেন্ট ক্রিয়েটর , ফ্রিলান্সাররা লক্ষ লক্ষ টাকা ঘরে বসেই অনলাইনের মাধ্যমে আয় করছে। কিন্তু আসল প্রশ্ন হল কিভাবে করেন ? কোন উপায়ে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করা যাবে এবং এডসেন্সের মূলত কাজ কি ? তা আমাদের জানতে হবে ।

আপনাদের মধ্যে অনেকেই হয়তো শুনেছেন যে, blogging বা YouTube channel বানিয়ে গুগল এডসেন্স (Google adsense) এর মাধ্যমে ফ্রিলান্সাররা অনেক টাকা আয় করছেন। কিন্তু, শুধু ব্লগ বা ইউটিউবে চ্যানেল বানালেই তো তা থেকে টাকা আয় করা যায় না । টাকা আয় করার জন্য গুগল এডসেন্স (Google adsense) এর থেকে এপ্রূভ সাইট / চ্যানেল মনিটাইজেশন এনাবল হতে হবে । তাই বলা চলে, টাকা আয় করার জন্য গুগল এডসেন্স (Google adsense) এর ভূমিকা প্রধান।

বর্তমানে , ইন্টারনেট থেকে অনলাইন আয় করা তেমন কোনো কঠিন কাজ না । আপনিও যদি চান তাহলে অনলাইন থেকে সহজেই টাকা আয় করতে পারবেন । আর, অনলাইন থেকে টাকা আয় করার জন্য সবথেকে প্রয়োজনীয় উপাদানই হলো Google adsense । যদিও ইন্টারনেটে আয় করার জন্য অন্য অনেক উপায় বা সমাধান রয়েছে ( Freelancing কাজ : Graphics designing , Logo designing, Article Writing ,Web designing ,Web developer ,App developing ইত্যাদি ) ।

তবে গুগল এডসেন্স (Google adsense) কে এ কারণে প্রথম স্থান দয়া হয় যে , গুগল এডসেন্স (Google adsense) সবচেয়ে বিশ্বাসী, সহজ এবং দীর্ঘমেয়াদি অনলাইন থেকে টাকা আয় করার উপায় । যে কেউই চাইলে Google এডসেন্স থেকে অনলাইনে টাকা আয় করতে পারবেন । তবে তার জন্য আপনাকে সঠিক নিয়ম এবং উপায় জানার সাথে কঠিন পরিশ্রম করার ক্ষমতা থাকতে হবে। কারণ, বিনা পরিশ্রমে কেউ জীবনে সফল হতে পারে নি । মূল টপিকে আসা যাক ।

Google adsense কি ?

গুগল এডসেন্স (Google adsense) হলো গুগলের এমন একটি সার্ভিস যার দ্বারা advertiser রা টাকার বিনিময়ে যেকোনো বিজ্ঞাপন ইন্টারনেটে প্রকাশ করেন , যা বিভিন্ন ব্লগ/চ্যানেলে দেখানো হয় (এটি মূলত Google adwords দিয়ে করা হয় ) এবং publisher রা নিজের blog বা YouTube video তে গুগলের বিজ্ঞাপনগুলো দেখিয়ে অনলাইন টাকা আয় করে থাকেন।

বিস্তারিত পড়তে এটি পড়ুন :

Google AdSense কি ? কিভাবে কাজ করে ?

গুগল এডসেন্সের কাজ কি ?

গুগল এডসেন্স (Google adsense) এর মূলত কাজ হলো সব রকমের ব্লগ, ওয়েবসাইট ( যেগুলো গুগল এডসেন্স (Google adsense) দ্বারা এপ্রূভড ) , ইউটিউব ভিডিও এবং app এ বিজ্ঞাপন দেখানো এবং যাদের ব্লগ/ওয়েবসাইট বা ভিডিও গুলিতে বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে তাদের কে ক্লিক ও ইম্প্রেশনের ভিত্তিতে কিছু রেভেনিউ (টাকা ) দেওয়া হয় । যা একাউন্টে জমাথাকে । যে বিজ্ঞাপন গুলো আমাদের ওয়েবসাইট বা ভিডিওতে দেখানো হয় সেগুলির জন্য গুগল আগেই advertiser দের থেকে টাকা নিয়ে থাকে (Google AdWords এর মাধ্যমে ) এবং সেই টাকার থেকে ব্লগ বা ভিডিও মালিকদের বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য গুগল একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দেয়।

আপনের মনে প্রশ্ন আসতে পারে এতে গুগলের রেভেনিও বা লাভ কি ?

এডভারটাইজাররা (Advertiser রা) বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য গুগল কে যে টাকা পে করে সেই পুরোটা গুগল publisher দের কে দেয় না ,বলেছিলাম নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা দেয় । Advertiser দের পে করা টাকার থেকে গুগল নিজের কাছে কিছু অংশ রাখে এবং বাকি অংশ ব্লগ, কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের বা app মালিকদের বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য দেয়। এভাবে গুগল থার্ড পার্টি হিসেবে ভাল আয় করে । গুগলকে দালালই মনে করতে পারেন ।

 

Google এডসেন্স থেকে যেভাবে টাকা আয় করবেন :

গুগল এডসেন্স থেকে অনলাইন টাকা আয় করার জন্য আপনার একটি ব্লগ/ওয়েবসাইট বা YouTube চ্যানেল বানাতে হবে। ব্লগ/ওয়েবসাইট বানালে তাতে আপনি নিয়মিত ভাবে লেখা,পোষ্ট বা আর্টিকেল লিখতে হবে। ইউটিউব চ্যানেল বানালে আপনার তাতে ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতে হবে । last update ২০১৯ অনুযায়ী আপনার চ্যানেলে ১০০০ subscriber ও 4000 মিনিট view থাকতে হবে ।

এডসেন্স থেকে বিজ্ঞাপন পেতে হলে যা করবেন :

গুগল এডসেন্স (Google adsense) থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার একটি ব্লগ/ ওয়েবসাইট বা YouTube (যাতে মনিটাইজড এনাবল করতে হবে ) চ্যানেলের আবশ্যক হবে। কারণ, গুগল এডসেন্স (Google adsense) কোথায় এড দেখাবে ? এর জন্য তো একটি স্থান দরকার । ব্লগ/ ওয়েবসাইট,এপ বা YouTube (যাতে মনিটাইজড এনাবল করতে হবে ) চ্যানেল এই তিনটির মধ্যে একটিও যদি আপনার কাছে থাকে তখন Google adsense এর ওয়েবসাইটে গিয়ে sign up করে form পূরণ করে আপনি একটি এডসেন্স একাউন্টের জন্য apply/ আবেদন করতে পারবেন।

আপনি যদি Blogger বা YouTube চ্যানেল ব্যবহার করেন তাহলে আপনি নিজের ব্লগার বা ইউটিউব চ্যানেলের account থেকে এডসেন্সের জন্য apply করতে হবে। দুই জায়গাতেই মনিটাইজেশনের অপশন পাবেন ।

আপনার ব্লগে নির্দিষ্ট পরিমণ ভিজিটর থাকতে হবে গুগল এডসেন্স (Google adsense) একাউন্ট এপ্রুভ পেতে হলে । এডসেন্সের জন্য apply করার সাথে সাথে আপনার একাউন্ট গুগল দ্বারা accept নাও হতে পারে। এর জন্য আপনার একবারের থেকে বেশি apply করা লাগতে পারে । কিছু শর্তপালন না করলে তারা এপ্রুভ করবে না ।

আর একে-বারেই এডসেন্স একাউন্ট চালু (active) করার জন্য আপনাকে গুগল এডসেন্সের program policies, শর্ত (terms & conditions) গুলি মেনে তারপর apply করতে হবে । আপনার একাউন্ট accept বা reject যাই হোক তা আপনাকে গুগল ইমেইলের মাধ্যমে জানিয়ে দেবে।

মনে রাখবেন, কেবল গুগল দ্বারা আপনার একাউন্ট accept হওয়ার পর আপনি নিজের ব্লগ বা ওয়েবসাইট বিজ্ঞাপন লাগিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন ।

কিছু মূল শর্ত :

১. ইউনিক টপিক হতে হবে ।

২. মাসিক ভালো পরিমাণের ভিজিটর থাকতে হবে । ভাল এসইও ভাল ভিজিটর আনতে পারবে ।

পড়ুন : SEO অন-পেজ অপটিমাইজেশন বিস্তারিত – এসইও

৩. নির্দিষ্ট টপিক হলে ভাল । ইত্যাদি …

গুগল এডসেন্স যেভাবে টাকা পে করে :

যখন পাবলিশাররা/আমরা নিজের ব্লগ/ওয়েবসাইট, app বা ইউটুভ (মনিটাইজড এনাবল) ভিডিওতে এডসেন্সের বিজ্ঞাপন দেখাই তখন তাতে বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। যখনই আমাদের ব্লগ বা ভিডিওতে দর্শক (visitors) আসেন এবং তারা যখন সেই বিজ্ঞাপন গুলি দেখে এবং তাতে ক্লিক করে তখন গুগল এডসেন্স সেই view বা click এর জন্য আপনাকে কিছু টাকা দেয় । কখনো কখনো পেজে ইম্প্রেশন এর জন্য ও গুগল পে করে , তবে তা অনেক হতে হবে।

যখন আপনার adsense একাউন্টে সর্বনিম্ন মোট ১০০$ (ডলার) ( বা ১০০$ এর বেশি হলে ) হয়ে যায় তখন গুগল আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্টে সেই টাকা পাঠিয়ে দেয় । বেতনের মত গুগল প্রতি মাসে টাকা দিয়ে থাকে তবে তা ১০০$ বা তার বেশি হতে হবে। এর আগে আপনার এড্রেস ভেরিফাই করবে ।



Author: drmasud

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *