চলুন দেখে আসি ২০১৫ সালে সেরা প্রযুক্তির আদলে তৈরি সাড়া জাগানো জনপ্রিয় ৫ টি স্মার্টওয়াচ!

প্রযুক্তির এই সময়ে মানুষ তার কাজকে আরো বেশি সহজ ও গতিময় করার জন্য কত রকমের নতুন নতুন প্রযুক্তির উদ্ভব করছে। ঠিক তেমনি স্মার্টওয়াচে ও প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। আমরা সাধারণত ওয়াচ ব্যাবহার করি সময় দেখার জন্য, কিন্তু এখন ওয়াচকে রূপান্তর করা হয়েছে একটি শক্তিশালী ডিভাইচে। স্মার্টওয়াচে আন্ড্রইয়েড ও আইওএস অপারেটিং সিস্টেমে তৈরি হচ্ছে, ফলে আপনি আন্ড্রইয়েড ও আইওএস অপারেটিং সিস্টেমের সব ফিচার স্মার্টওয়াচে পাবেন। আপনি স্মার্টওয়াচের দ্বারা সামাজিক গণমাধ্যমে সংযুক্ত হতে পারবেন, আবহাওয়া সম্পর্কে জানতে পারবেন, স্বাস্থ্য, ফিটনেস, সামাজিক নেটওয়ার্ক বার্তা ও বিজ্ঞপ্তি, ন্যাভিগেশন ইত্যাদি আরো অনেক কিছু করতে পারবেন এবং আপনার জীবনধারা অনুযায়ী স্মার্টওয়াচ অ্যাপ্লিকেশন নির্বাচন করতে পারবেন। তাহলে চলুন দেখে আসি ২০১৫ সালে সেরা প্রযুক্তির আদলে তৈরি সাড়া জাগানো জনপ্রিয় ৫ টি স্মার্টওয়াচ!

 

পেবল স্মার্টওয়াচ:

Pebble

খুবি আরামদায়ক ও জনপ্রিয় একটি স্মার্টওয়াচ হল পেবল। এই স্মার্টওয়াচের মুল্য হল মাত্র ৯৯ ডলার। এই স্মার্টওয়াচে অসাধারণ জল-প্রতিরোধী নকশা, ৬,০০০ এর উপর অ্যাপ্লিকেশন ব্যাবহার করার সুযোগ, ওয়াটারফেচ এক্সেস এবং আরো অনেক ফিচার পাবেন। আপনি বিভিন্ন কালারের পেবল ওয়াচ পাবেন যেমন, সাদা, লাল, কালো, ধূসর, কমলা, সহ একাধিক রং, থেকে থেকে পছন্দ করতে পারবেন। পেবল অ্যাপল এবং অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের উভয় সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

 

এলজি জি ওয়াচ আর:

LG G

স্মার্টওয়াচ প্ল্যাটফর্মের জন্য সেরা ডিভাইস হল এলজি জি ওয়াচ আর। জি ওয়াচের মাধ্যমে আপনার গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক নেটওয়ার্ক বার্তা / নটিফিকেশন, বার্তা পাঠাতে, মিউজিক শুনতে, হার্ট রেট জানতে, ফিটনেস ট্র্যাকিং, আবহাওয়া, ন্যাভিগেশন ইত্যাদি আরো বেশ কিছু ফিচার এই ওয়াচে পাবেন।

 

অ্যাপল ওয়াচ:

Apple Watch

২০১৫ সালে খুবি জনপ্রিয়তা পেতে যাচ্ছে অ্যাপল ওয়াচ। অ্যাপল স্মার্টওয়াচের সাম্প্রতিক সময়ে মোড়ক উন্মোচন হয়েছে এবং আশা রাখা যায় খুব শীঘ্রয় বাজারে আসবে। আপনি অ্যাপল ওয়াচের মাধ্য আপনার কব্জি থেকে কল, টেক্সট ম্যাসেজ, এবং অ্যাপ্লিকেশন নটিফিকেশন পাঠাতে ও দেখতে পারবেন এবং আপনার নটিফিকেশন ভয়েস মেসেজের মাধ্যমে উত্তর দিতে পারবেন। তাছাড়াও আপনার দৈনন্দিন কার্যকলাপ, সাপ্তাহিক কার্যকলাপ, ফিটনেস ট্র্যাকিং, আবহাওয়া এবং আরো অনেক কিছু এই ওয়াচে পাবেন।

 

স্যামসাং গিয়ার 2: 

Samsung Gear 2

স্যামসাং গিয়ার 2 একটি অসাধারণ ওয়াচ। এই ওয়াচে কিছু অসাধারণ ফিচার আছে যেগুলো অনেক আনন্দদায়ক এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি।  এই ওয়াচের মাধ্যমে আপনি কল করতে এবং কল গ্রহণ করতে পারবেন, তাত্ক্ষণিক বিজ্ঞপ্তি গ্রহণ করতে সক্ষম হবেন, ভিডিও রেকর্ডিং, বিল্ট ইন হার্ট রেট সেন্সর, স্বাস্থ্য বৈশিষ্ট্য জানা সহ আরো অনেক মজাদার ফিচার এখানে পাবেন।

 

মটো ৩৬০:

moto 360

গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত মটো ৩৬০ স্মার্ট ওয়াচ। মটো ওয়াচের মাধ্যমে আপনি গুগল ভয়েস কমান্ড পাঠাতে পারবেন, বিভিন্ন সতর্ক বার্তা ও বিজ্ঞপ্তি প্রদান করতে পারবেন, ওয়াচের আকৃতির কাস্টমাইজ করার সুযোগ সহ আরো অনেক কিছু। মটো স্মার্টওয়াচ জল প্রতিরোধী, আকর্ষণীয় বৃত্তাকার নকশা, উজ্জল ডিসপ্লে, হৃদস্পন্দন মনিটর আপনাকে অনেক মজা দিবে।

সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের মত এখানেয় শেষ করছি, আশা রাখি আগামী দিনে নতুন কোনো বিষয় নিয়ে হাজির হতে পারব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *