জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম,অর্থ ও হাদিস

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম অর্থ ও হাদিস

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম : জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত ১০ জন সাহাবীদের নাম ,অর্থ ও হাদিস জানতে পুরো পোষ্টটি পড়ুন । আশারায়ে মুবাশশারা যার অর্থ সুসংবাদপ্রাপ্ত দশজন ও বলা হয় ওনাদেরকে ।
জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম নিম্নরূপঃ
১. আবু বকর (রা)
২.উমর ইবনুল খাত্তাব (রা)
৩.উসমান ইবনে আফফান (রা)
৪.আলি ইবনে আবি তালিব (রা)
৫.তালহা ইবনে উবাইদিল্লাহ (রা)
৬.যুবাইর ইবনুল আওয়াম (রা)
৭.আবদুর রহমান ইবনে আউফ (রা)
৮.সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (রা)
৯.সাঈদ ইবনে যায়িদ (রা)
১০.আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ (রা)

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম সম্পর্কে হাদিস

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নাম সম্পর্কে হাদিস নিম্নরূপ :
সাঈদ ইবনে যায়িদ(রাঃ) বর্ণনা করেন:

আব্দুর রহমান ইবনুল -আকনাস বলেন সে যখন মসজিদে প্রবেশ করেন তখন একজন ব্যক্তি আলি(রাঃ)-কে সালাম দেন। তখন, সাঈদ ইবনে যায়িদ দাড়িয়ে গেলেন এবং বলেন, আমি সাক্ষী দিচ্ছি যে,আল্লাহর নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ)-কে বলতে শুনেছি যে দশ জন লোক জান্নাতে যাবে : আবু বকর জান্নাতি, উমর জান্নাতি, উসমান জান্নাতি, আলি জান্নাতি, তালহা জান্নাতি, যুবাইর ইবনুল আওয়াম জান্নাতি, আবদুর রহমান ইবনে আউফ জান্নাতি, সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস জান্নাতি, এবং আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ জান্নাতি। আমি কি দশম ব্যক্তির নাম বলব। লোকেরা বলল: কে সে ? তিনি নীরব থাকলেন। লোকেরা আবার বলল : কে সে ? তিনি বললেন : সে হলো সাঈদ ইবনে যায়িদ ।

সংগ্রহ আবু দাউদ, সুনান আবু দাউদ

আবদুর রহমান ইবনে আউফ বর্ণনা করেন:

আল্লাহর নবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে বলতে শুনেছি যে দশ জন লোক জান্নাতে যাবে আবু বকর জান্নাতি, উমর জান্নাতি, উসমান জান্নাতি, আলি জান্নাতি, তালহা জান্নাতি, যুবাইর ইবনুল আওয়াম জান্নাতি, আবদুর রহমান ইবনে আউফ জান্নাতি, সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস জান্নাতি,সাঈদ ইবনে যায়িদ জান্নাতি, এবং আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ জান্নাতি।

তিরমিযী

জান্নাতের সুসংবাদ দেয়ার পটভূমিঃ

হিজরি দশম সালে মদিনাতে ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ দেখা দিয়েছিল। ফলে বহুলোক অনাহারে ও অর্ধাহারে দিনা যাপন করছিল। কোনো দিক থেকে সাহায্য-সহযোগিতা ও খাদ্য সামগ্রী আমদানি হওয়ার সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছিল না। এমনি এক দিন হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) মদিনা মসজিদে খুতবা দান করতে ছিলেন। এমন সময় হঠাৎ একটি সংবাদ এল যে, শামদেশ থেকে প্রচুর খাদ্য সামগ্রী নিয়ে একদল বণিক মদিনায় আগমন করেছে। তখন সব সাহাবায়ে কেরাম (রাঃ) বণিক দলের নিকট গমন করে। কেবলমাত্র দশজন সাহাবা তথায় গমন না করে মনোযোগ সহকারে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর খুতবা শ্রবণে নিমগ্ন রইলেন। তখনই তিনি জান্নাতের সুসংবাদ ঘোষণা করেন।

আশারায়ে মুবাশশারা কি

প্রশ্নঃ আশারায়ে মুবাশশারা কি ? / আশারায়ে মুবাশশারা বলতে কি বুঝায় ?
উত্তরঃ ইসলামি পরিভাষায়, আশারায়ে মুবাশশারা বলতে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর দশজন সাহাবীকে বোঝায় ,যারা হাদিস অনুযায়ী জীবদ্দশায় জান্নাতের সুসংবাদ/প্রতিশ্রুতি পেয়েছিলেন। 

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নামের অর্থ

জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত সাহাবীদের নামের অর্থ নিম্নরূপ :
১. আবু বকর নামের অর্থ তরুণ উট এর বাবা । আবু বকর নামের অর্থ কি ? | Abu Bakar নামের অর্থ
২.উমর ইবনুল খাত্তাব (রা) নামের অর্থ
৩.উসমান ইবনে আফফান (রা) নামের অর্থ
৪.আলি ইবনে আবি তালিব (রা) নামের অর্থ
৫.তালহা ইবনে উবাইদিল্লাহ (রা) নামের অর্থ
৬.যুবাইর ইবনুল আওয়াম (রা) নামের অর্থ
৭.আবদুর রহমান ইবনে আউফ (রা) নামের অর্থ
৮.সাদ ইবনে আবি ওয়াক্কাস (রা) নামের অর্থ
৯.সাঈদ ইবনে যায়িদ (রা) নামের অর্থ
১০.আবু উবাইদা ইবনুল জাররাহ (রা) নামের অর্থ

Author: Shahbi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *