ফেসবুক নির্মাতা মার্ক জুকারবার্গ বিয়ের কাজটা সম্পূর্ণ করলেন।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ এটা কী করলেন! বিশ্বের লাখ লাখ তরুণীর হূদয় এভাবে তিনি ভেঙে দিতে পারলেন! শুনুন তবে সেই হূদয় ভাঙার কারণ—ফেসবুকে হুট করেই নিজের সম্পর্কের ‘স্ট্যাটাস’টা বদলে ‘বিবাহিত’ লিখে দিয়েছেন তিনি। নিছক মজা করে নয়, সত্যি সত্যিই সবাইকে চমকে দিয়ে গতকাল শনিবার বিয়ে করেছেন মার্ক জাকারবার্গ।
ভাবছেন, তাহলে কে সেই সৌভাগ্যবাননারী? বিবিসি অনলাইন জানিয়েছে, নাম তাঁর প্রিসিলা চ্যান। বয়স ২৭। অবশ্য চ্যানের সঙ্গে জাকারবার্গের সম্পর্কটা নতুন নয়। দীর্ঘ নয় বছর ধরেই তাঁরা একে অপরকে চেনেন। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে, চুটিয়ে প্রেমপর্ব সেরে তবেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন দুজনে।
নয় বছর আগে তাঁরা মুখোমুখি হয়েছিলেন হার্ভার্ডে। ২০০৪ সালেসেখানেই ফেসবুক প্রতিষ্ঠা করেছিলেন জাকারবার্গ। পরে তাঁরাক্যালিফোর্নিয়ায় চলে আসেন। ফেসবুকের সদর দপ্তর এখানেই। মিসেস জাকারবার্গ ওরফে প্রিসিলাচ্যান পড়ালেখা করেছেন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল স্কুলে। সবে শেষ করেছেন স্নাতকের পাঠ।
বিয়ের অনুষ্ঠানে আগত অতিথিরা প্রথমে ভেবেছিলেন, স্নাতক শেষ করার আনন্দ উদ্যাপন করতেই বুঝি তাঁদের নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন জাকারবার্গ ও চ্যান। কিন্তু ক্যালিফোর্নিয়ার পালো আলতোর বাসভবনে এসে অতিথিদের চোখ রীতিমতো কপালে! বিয়ের পোশাকে সেজে বসে আছেন জাকারবার্গ ও চ্যান।
চ্যানের বিয়ের আংটিটি ছিল খুবই সাধারণ মানের রুবি দিয়ে তৈরি। আরআংটিটির নকশা করেছেন জাকারবার্গনিজেই।
অবশ্য যা হওয়ার তো হয়েই গেছে, এখনজাকারবার্গ-চ্যান দম্পতির জন্য শুভকামনা জানানো ছাড়া আর কী-ই বাকরার আছে!

Author: বাপি কিশোর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *