ফ্রিলান্সিং মাষ্টার :: প্র্যাকটিকাল ফ্রিলান্সিং ক্যারিয়ার (পর্ব – ১৮)

প্রিয় পাঠকগন, আস্‌সালামুআলাইকুম। সবাই কেমন আছেন? আশা করি আল্লাহ্‌র রহমতে ভালই আছেন। প্র্যাকটিক্যাল ফ্রিল্যান্সিংয়ের আজকের পোষ্টে, এই মাত্র শেষ করা একটা কাজের বিস্তারিত লিখব। আমার করা এ পর্যন্ত সবচেয়ে বড় বাজেটের কাজ হল এটা। আশা করি আপনাদের সবার ভাল লাগবে।

 

 

গতকাল, বিকালের দিকে কিছু কাজের চাপ ছিল। তবুও ওডেস্কে গিয়ে কাজগুলো দেখছিলাম। দেখতে দেখতে ৩/৪টা কাজে বিডও করে ফেললাম। এর মধ্যে একটা কাজে সাথে সাথে একটা কাজের ইন্টারভিউতে যাওয়ার সুযোগ পেয়ে যাই। ইন্টারভিউ শেষ করে কাজটা জিতে নেই। এক কাজ জিততে না জিততেই আরেকটা কাজ দেখতে পেলাম “IFone Ad design” নামের। “iFone” লেখা দেখে কিছুটা হাসি উঠলো। ইন্টারেস্টেড হয়ে কাজটা ওপেন করি। দেখি বিস্তারিত কিছু লিখা নাই, সামান্য কয়েকটা কথা। ভাবলাম, এত কষ্ট করে জবটা পড়লাম, বিড’ই করে নেই। বিড করতে গিয়ে দেখি আরেকটা সমস্যা। বায়ার বলে আওয়ারলি রেট $35-$75 হতে হবে। এদিকে আমার আওয়ারলি রেট $5। একেবারে আশা ছেড়েই বিড করলাম $30 এ। কিছু সময় পরে দেখি বায়ার আমাকে ডিরেক্ট হায়ার করে ফেলেছে। এবং আমার আওয়ারলি রেট $35-এ অফার করেছে। আমি জবটির বিস্তারিত দেওয়ার জন্য বায়ারকে অনুরোধ করি। বায়ার আমাকে কাজের একটা গাইডলাইন দিয়ে সোর্স ফাইলগুলো দেয় এবং Weekly Time Limit: 8hr করে দেয়। কাজ শুরু করব এমন সময় চলে গেল কারেন্ট। বায়ারকে বললাম, আমি একটু পড়ে কাজ শুরু করব, এখন অফলাইনে যাচ্ছি।

কিছুক্ষণ পর কারেন্ট চলে আসে। তারপর আবার কাজ শুরু করি। প্রায় অর্ধেক কাজ শেষ করার পর বায়ারকে একটা স্যাম্পল ফাইল দেই। বায়ার আমাকে বলে যে আমি সঠিকভাবেই কাজ করছি। শুধু কালার পরিবর্তন করে নীল থেকে সাদা করে নিতে।

তারপর, আবার কালার পরিবর্তন করে, কাজ করতে শুরু করি। অনেক সময় চেষ্টা করে টোটাল ১০ ঘন্টা ব্যয় করে একটা ফাইনাল রেজাল্টে যাই। বায়ারকে কাজটার স্যাম্পল দেখাই। বায়ার খুব খুশি হয়ে আমাকে $35×8=$280 তো দিলই, তার সাথে আরো $260 বোনাস হিসেবে দিল এবং কাজটা শেষ করে দিল।

ফাইনাল ফাইলটা নিচে শেয়ার করলাম।

কিছু কথা বলে নেই-

অনেকেই ভাবেন, ভাল আয় করতে হলে প্রোগ্রামিং টাইপের কাজ ছাড়া সম্ভব না। আর প্রোগ্রামিং শেখা অনেক কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইন বা ওয়েব ডিজাইন শেখা বেশী কঠিন কোন ব্যাপার না। আর এইসব কাজ করতে অনেক মজাও পাওয়া যায়। তাছাড়া আয়ের পরিমানও একেবারে কম না। আপনারাইতো দেখলেন মাত্র ৮ ঘন্টা কাজ করে আমিই আয় করে ফেললাম $550+। তাহলে, গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করেও আপনি মাসে $1000 বা এরও বেশী আয় করতে পারেন। আমি এটা বলছি না যে আপনি প্রোগ্রামিং শিখবেন না। আপনার যা ইচ্ছা হয় তা’ই শিখুন। তবে কোনটাকে তুচ্ছ করে দেখার দরকার নেই।

আসুন জেনে নেই কিছু ফ্রিল্যান্স উপযোগী টিপস্‌-

  1. বায়ারের কথা মত কাজ করুন।
  2. প্রথমে কিছু কাজ করে বায়ারের কাছ থেকে তার মন্তব্য আনার চেষ্টা করুন।
  3. হুট করে অফলাইনে না গিয়ে বায়ারকে ইনফরম করে অফলাইনে যাবেন।
  4. বায়ারের সাথে সব সময় ভাল ব্যবহার করবেন।
  5. আপনি যে একটা সৎ এবং যোগ্য কর্মী তা সব সময় প্রমান করার চেষ্টা করবেন।

আপনার সততা, কঠোর পরিশ্রম এবং দক্ষতাই আপনাকে একদিন না একদিন সত্যিকারের সফল ফ্রিল্যান্সারে পরিনত করবে।

আজ এ পর্যন্তই, সবার জন্য শুভ কমনা রইল। আল্লাহ্‌ হাফেজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *