ব্লগিং কি এবং কেন আপনি ব্লগিং পেশা হিসেবে নিবেন?

ব্লগিং কি এবং কেন আপনি ব্লগিং পেশা হিসেবে নিবেন?

নিজের প্রত্যাহিক জীবনের কিছু ঘটনা বা একটি নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে ধারাবাহিক ভাবে লিখার মাধ্যমে ইন্টারনেটে সবার সাথে শেয়ার করাকে ব্লগিং বলে। যেসব ওয়েবসাইটে ব্লগিং করা হয় সেসব ওয়েবসাইটকে ব্লগ বলে। আর যে ব্লগিং করে তাকে ব্লগার বলে| অথাৎ ব্লগিং এর মাধ্যমে ব্লগার বা লেখকের মনের ভাব এবং পাঠকদের মতামত তুলে ধরা হয়| এই ব্লগিং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে হতে পারে। যেমন: আপনার জীবন, সাহিত্য, রাজনীতি, ইন্টারনেট ইত্যাদি। অসংখ্য বিষয় আছে যেগুলো নিয়ে আপনি ব্লগিং করতে পারবেন। মনে করুন আপনি কোন সমস্যা পড়েছেন তখন এই সমস্যা সম্পর্কে গুগোলে সার্চ করে দেখেন দেখবেন অনেক সমাধান এসেছে বিভিন্ন ওয়েব সাইটে আর এই সেবা টি আপনি পাচ্ছেন বিনামুল্যে। এই যে সেবাটি আপনাকে দেওয়া হল এটাই ব্লগিং।

উদাহারনটি লক্ষ্য করুন: আপনার প্রিয় বন্ধু কে জন্মদিন উপলক্ষে একটি এস এম এস পাঠাবেন কিন্তু

এস এম এস এ কি লিখবেন তা বুঝতে পারছেন না। তাই আপনি গুগোলে জন্মদিনের শূভেচ্ছা জানানোর এস এম এস সার্চ করলেন। দেখলেন অনেকগুলো সাইট আসলো এবং বিভিন্ন ধরনের জম্মদিনের এস এম এস পেয়েছেন বিনামুল্যে। ব্লগাররা আপনাকে এই এস এম এস বিনামূল্য সরবারহ করেছে। এটাই হল এক ধরনের ব্লগিং।

১। ব্লগিং এ আয়ের কোন সীমা নেই। চাকুরিতে বেতন পাবেন ১০ বা ২০ হাজার। আর ব্লগিং ক্যারিয়ার এ তা আরও বাড়িয়ে নিতে পারেন যদি আপনি আপনার সর্বোচ্চ মেধা ও শ্রম কাজে লাগাতে পারেন। আপনি প্রতি মাসেই আয় করতে পারেন ১ থেকে ৩ লক্ষ টাকা অথবা আরও বেশি। আপনার মেধা ও শ্রম ই আপনাকে সাফল্য দিতে পারে।

২। ব্যবসা মানে পুঁজি এবং ঝুঁকি যা সর্বশান্ত হওয়ার একমাএ রাস্তা।আর ব্লগিং এর জন্য প্রয়োজন আপনার মেধা ও শ্রম এবং ক্ষেএ বিশেষে ডোমেইন আর হোস্টিং যা কিনতে ২ বা ৩ হাজার টাকা প্রয়োজন। আর যে বিষয়টি অতি প্রয়োজন তা হলো ইন্টারনেট সংযুক্ত পিসি।

৩। সবচে বড় কথা হছে ব্লগিং এর কাজে পাওয়া যায় স্বাধীনতা। কাজের ফাঁকে বোরিং লাইফ কে আনন্দ দেয়ার জন্য যে কোন জায়গায় আপনি ঘুরে আসতে পারেন। এজন্য কেউ আপনাকে দায়ী করতে পারবেনা।

৪। এই পেশার আরেকটি সুবিধা হলো এটি নমনীয় ব্যবসা । খুব দ্রুত আপনি নিজের মত করে নিয়ন্ত্রন করতে পারেন। যে কেউ, যে কোন সময়, যে কোন স্থানে বসে ব্লগিং করতে পারে। যে কোন ছাত্র, চাকুরীজীবী, গৃহিণী তারা তাদের কাজের পাশাপাশি এই কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারে।

 


Author: cfaion341

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *