সরকারী অফিসারদের আদবের নমূনা

আজ সকাল থেকেই আমার সাথে ঘটছে আজব সব ঘটনা ।
ডালের জন্য বাজারে গেলাম ।বাড়ি ফিরে শুনি আমি নাকি নিচের মেয়েটিকে ঘুসি দিয়ে নাক ফাঁটিয়ে দিয়েছি ।

থ হয়ে গেলাম আমি ।অবাক চোখে বাচ্চা মেয়েটার দিকে তাকালাম ।চার কি পাঁচ হবে বয়স ।নাম মার্জিয়া ।
আমি ছোট থেকেই একটু রোগা ।তাই আমি কোন বাচ্চাকেই কোলে নিতে পারতাম না ।কিন্তু তাও তিনটি বাচ্চাকে দেখলেই কোলে নিতে ইচ্ছে হত ।তাদের মধ্যে এই মার্জিয়া একজন ।
ধীরে ধীরে মেয়েটা চোখের সামনেই বেড়ে উঠল ।

তো বাজার থেকে ফিরতেই আমাতে জিজ্ঞেস করা হল ।আমি বললাম ,মারা তো দূরে কথা আমি এ সম্পর্কে কিছুই জানিনা ।তো এখানে বাজারের উদ্দেশ্যে বের হলাম ।আমাকে দুজন লোক আটকাল ।চেনা দুজন ।একজন নাজিম দাদা (মানুষকে বিদেশ কাজের জন্য পাঠাতে দালালের কাজ করেন) অন্যজন রমযান (যার পরিচয় নিচে দেওয়া হয়েছ) ।
আমি তাদের বললাম ,আশ্চর্য !আমি এসম্পর্কে কিছুই জানিনা ।
নাজিমঃ তুই না বললে কি হবে ?২০জন পোলাপান তো স্বাক্ষী দিয়েছে ।
আমি আবারও থ ।এসব কি শুনছি ।

তো আমি বললাম ,যারা দেখেছে তাদের আমার সামনে বলতে বলা হোক ,তাছাড়া মার্জিয়াকেও বলতে বলা হোক ।

তত্‍ক্ষনাত্‍ একজন স্বাক্ষীকে পাওয়া গেল যে নাকি আমাকে মার্জিয়াকে মারতে দেখেছে ।নামঃ আরিফ ।তো তাকে জিজ্ঞেস করা হলে ,সে বলল সে কিছুই জানে না ।তাঁর রমযান আঙ্কেল নাকি জানে ।

রমযান একজন সরকারী কর্মকতা ।ARMY তে কাজ করেন ।
ওনাকে এ সম্পর্কে জিজ্ঞেস করতে গেলাম আমি ও আমার মা ।
বলতেই ওনার প্রথম কথা ,বাইনচু*** তোর কাছে আমার কৈফিয়ত দিতে হবে ?
আমি বললামঃ আমি আপনার কাছে কৈফিয়ত চাচ্ছিনা ।শুধু বলতে চাচ্ছিযে ,আমি নাকি এ সম্পর্কে জানেন যে আমি মার্জিয়াকে মেরেছি ।
ওনিঃ ওই ব্যাটা এইডা মস্তানীর জাগা না ।চাপায় চোপায় দুইডা দিমু ।
বলে ওনি আমার উপর চড়াও হলেন ,আমার মায়ের সামনে ওনি আমার গলায় চেপে ধরেন এবং এলোপাথারী কয়েকটা ঘুসি মারেন ।

যাহোক সেখান থেকে টেনে ওনি আমাকে মার্জিয়াদের বাড়িতে আনেন ।

বলেন যে ,আমার বিচার হবে ।
আশ্চর্যভাবে তখন বদলে গেছে বিচারের খাদ ।এখন আমি তার অভদ্রতার কেসের আসামী ।
আমি নাকি তাঁর সাথে অভদ্রতা করেছি ।

বিপুল মানুষ নিশ্চুপ ।আমার উপর চড়াও হল আবার এই সরকারী কর্মকতা ।তাঁর তেজ ফলাল আমার নিরিহ আমার উপর ।গালে মুখে এলোপাথারী কয়েকটা ঘুসি দিয়ে কিছুটা শান্ত হল সে ।

এরপর মা আমাকে টেনে ঘটনাস্থল থেকে নিয়ে এসেছে ।জানি না আমার পূর্ব পুরুষের কার উপর জমিয়ে থাকা ক্ষোভটা ঝারলেন ওনি ।

যাহোক ওনি আমাকে মেরেছেন এতে আমার কোন অভিযোগ নেই ।
আমার অভিযোগ এই জন্য যে ,আমার মাকে ওনি যে বকা (সরকারী কর্মকতা বিশেষ করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর খানদানী অভ্যাস) দিয়েছেন আমি তাঁর বিচার কার কাছে চাইব ?

শুধু ,শুধু এই জিবন পেলাম ।এইসব সওয়ার জন্য আর চোখের সামনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এই কদাকার আচরণগুলো দেখার জন্যই হয়তো আমার জন্ম ।

Author: ♠ নির্বাচিত রাজা ♫

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *